1. admin@www.shikhatvlive.com : news :
মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ১০:০১ পূর্বাহ্ন

দেশে প্রতি চারজনে একজন উচ্চরক্তচাপে আক্রান্ত

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ১৭ মে, ২০২২
  • ৩৩ ,৫২৫০ বার পড়া হয়েছে

 

ছবি : সংগৃহীত

আজ (১৭ মে) বিশ্ব উচ্চরক্তচাপ দিবস। বিশ্বজুড়ে উচ্চরক্তচাপ একটি নীরব ঘাতক হিসেবে পরিচিত। বাংলাদেশ জনমিতি স্বাস্থ্য জরিপ ২০১৭-১৮-এর হিসেব অনুযায়ী, দেশের মোট জনসংখ্যার শতকরা ২১ শতাংশ বা প্রতি চারজনে প্রায় একজন উচ্চরক্তচাপে আক্রান্ত।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্যমতে, বিশ্বে প্রায় ১৫০ কোটি মানুষ উচ্চরক্তচাপের সমস্যায় ভুগে থাকেন। আর এই সমস্যায় স্ট্রোক ও হৃদরোগসহ নানান জটিল রোগের ভুগে প্রতি বছর প্রায় ৭০ লাখ মানুষ মৃত্যুবরণ করেন।

উচ্চরক্তচাপ একটি অসংক্রামক রোগ। এটি বৈশ্বিক মহামারির একটি চালিকাশক্তি এবং বিশ্বব্যাপী মৃত্যু ও অক্ষমতার অন্যতম প্রধান কারণ। বিশ্বব্যাপী অর্ধেকেরও কম প্রাপ্তবয়স্ক মানুষ তাদের উচ্চরক্তচাপ বিষয়ে সচেতন। নীরব ঘাতকটির সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ওয়ার্ল্ড হাইপারটেনশন লিগ প্রতি বছর ১৭ মে বিশ্ব উচ্চরক্তচাপ দিবস পালন করে। দিবসটির এ বছরের প্রতিপাদ্য- ‘আপনার রক্তচাপ সঠিকভাবে পরিমাপ করুন, নিয়ন্ত্রণে রাখুন, দীর্ঘায়ু লাভ করুন।’

উচ্চরক্তচাপ ও এর লক্ষণ

রক্তচাপ যদি স্বাভাবিক মাত্রার চেয়ে বেড়ে যায় তাহলে তাকে উচ্চরক্তচাপ বা হাইপারটেনশন বলা হয়। স্বাভাবিক অবস্থায় একজন প্রাপ্তবয়স্ক সুস্থ মানুষের রক্তচাপের পরিমাপ ১২০/৮০ মি.মি. পারদচাপ ধরা হয়। রক্তচাপের এই মাত্রা দুইটি ভিন্ন দিনে ১৪০/৯০ মি.মি. পারদচাপ বা তার বেশি হয় তবে তাকে উচ্চ রক্তচাপ রয়েছে বলে ধরা হয়।

তবে বয়স নির্বিশেষে রক্তচাপ কিছুটা কম বা বেশি হতে পারে বলে জানান বিশেষজ্ঞরা। ডায়াবেটিস ও কিডনি রোগীদের ক্ষেত্রে ১৩০/৮০ মি.মি. পারদচাপ-এর অধিক হলে তা উচ্চ রক্তচাপের পর্যায়ে পড়ে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন

ওয়েবসাইট নকশা প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত