1. admin@www.shikhatvlive.com : news :
সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ০৩:০৮ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
টেলিভিশন উন্মুক্ত করে দিয়েছি, সবাই কথা বলতে পারেন: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঢাকাসহ দেশের যেসব জায়গায় আজও ঝড়-বৃষ্টি হতে পারে বছরের প্রথম পূর্ণ চন্দ্রগ্রহণ চলছে হাটে কচুর লতি বিক্রি নিয়ে মুখ খুললেন বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যাপক নওগাঁ নিয়ামতপুরে এক অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে  অনিয়ম ও দুর্নীতিসহ নিয়োগ জালিয়াতির  অভিযোগ । বিয়ের আশ্বাসে ইউপি সদস্যকে বাড়িতে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ রাজশাহীর পবায় মোটরসাইকেল ও মাটিকাটা ট্রাকটরের সংঘর্ষে নিহত তিন মেয়ের সঙ্গে অভিমান করে শিক্ষিকার আত্মহত্যা বেসরকারি এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের মাসিক বেতন সরকারি নিয়মে উত্তোলনের ব্যবস্থা চাই। নাটোরে গৃহবধূকে ধর্ষণ ,ধর্ষক গ্রেফতার

তালতলীতে মুজিব বর্ষের ঘর পাওয়ার মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানীর অভিযোগ।

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: শুক্রবার, ১ এপ্রিল, ২০২২
  • ২৪ ,৫২৫০ বার পড়া হয়েছে

 

তালতলী(বরগুনা)প্রতিনিধি

বরগুনার তালতলীতে মুজিব বর্ষের ঘর খাস জমিতে উঠানোর কারনে। মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ উঠেছে হানিফ,নিজাম,আবু ছালেহ ফজলুল হক গংদের বিরুদ্ধে।

শুক্রবার(১ এপ্রিল) ১১টায় তালতলী সাংবাদিক ফোরামে এক সংবাদ সম্মেলনে এমন অভিযোগ করেছেন ছাতন পাড়া এলাকার বাসিন্দা কালু শিকদার ও তার পরিবার।

সংবাদ সম্মেলনে তারা বলেন,দরিদ্র গৃহহীন ভূমি হীন হওয়ার কারনে। মুজিব বর্ষের সরকারি ঘর পাওয়ার আবেদন করলে উপজেলা প্রশাসন যাচাই-বাছাই করে উপজেলার ৪৪নংবড়বগী মৌজার এস.এ ১নং খাস খতিয়ানের ৪১৬নং দাগে আমরা ঘর উত্তোলন করি।
এবং সরকারি জমি থেকে মাটি ভরাট করতে গেলে

হানিফ, নিজাম,আবু সালেহ,তাদের পিতা ফজলুল হক সহ আরো ১০/১৫ জন গালাগালি করে। আমি প্রতিবাদ করলে তারা আমাকে মারধর করে। এ সময় আমার ডাক চিৎকারে আমার মেয়ে জহরা ছুটে এলে তাকেও মারধর করে সরকারি ঘর ভেঙে ফেলে। আমার মেয়ে আমতলী সরকারি হাসপাতালেচিকিৎসাধীন রয়েছে। ফজলুল হক গংরা মূলত মূল ঘটনাটি ধামাচাপা দিতেই আমাদের বিরুদ্ধে একটি মিথ্যা ও হয়রানির মামলা করেছে। আমাদের বিরুদ্ধে করা হয়রানির মামলা প্রত্যাহার ও দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার সুদৃষ্টি কামনা করেছি।

এ বিষয় মিজানুর রহমান বলেন,আমার পিতা ফজলুল হক মাস্টার ছয়মাস পূর্বে স্ট্রোক করে অসুস্থ হয়ে বিছানায়। আর সরকারি ঘরটি আমাদের রেকর্ডিও সম্পত্তিতে উঠাইছে এ সময় আমার ভাই আবু ছালেহ বাঁধা দিলে তারা আমার ভাই ও মা কে ১০/১২ জন মারধর করে। তারা আমাদের ঘরবাড়ি আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে। মারামারির সময় আমি বরিশালে ছিলাম।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন

ওয়েবসাইট নকশা প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত