1. admin@www.shikhatvlive.com : news :
সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ০১:৫৮ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
টেলিভিশন উন্মুক্ত করে দিয়েছি, সবাই কথা বলতে পারেন: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঢাকাসহ দেশের যেসব জায়গায় আজও ঝড়-বৃষ্টি হতে পারে বছরের প্রথম পূর্ণ চন্দ্রগ্রহণ চলছে হাটে কচুর লতি বিক্রি নিয়ে মুখ খুললেন বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যাপক নওগাঁ নিয়ামতপুরে এক অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে  অনিয়ম ও দুর্নীতিসহ নিয়োগ জালিয়াতির  অভিযোগ । বিয়ের আশ্বাসে ইউপি সদস্যকে বাড়িতে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ রাজশাহীর পবায় মোটরসাইকেল ও মাটিকাটা ট্রাকটরের সংঘর্ষে নিহত তিন মেয়ের সঙ্গে অভিমান করে শিক্ষিকার আত্মহত্যা বেসরকারি এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের মাসিক বেতন সরকারি নিয়মে উত্তোলনের ব্যবস্থা চাই। নাটোরে গৃহবধূকে ধর্ষণ ,ধর্ষক গ্রেফতার

আমি কোনো ছাত্রীর শরীর স্পর্শ করিনি : অভিযুক্ত শিক্ষক

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ৩১ মার্চ, ২০২২
  • ২৮ ,৫২৫০ বার পড়া হয়েছে

 

পঞ্চগড় প্রতিনিধি :

পঞ্চগড়ের বোদা পাইলট মডেল সরকারি স্কুল অ্যান্ড কলেজের আইসিটি শিক্ষক নুরে আলম সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে কয়েকজন ছাত্রীর সঙ্গে অশোভন আচরণের অভিযোগ উঠেছে। গত ২৮ মার্চ ছাত্রীদের অভিভাবক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত এই অভিযোগ করেন। অভিযোগে বলা হয়েছে, ওই শিক্ষক ক্লাসে শেখানোর সময় ছাত্রীদের শরীর স্পর্শ করেন।

daraz

অভিযোগকারী অভিভাবকদের মধ্যে আমিনুর রহমান নামে এক ব্যক্তি বলেন, আমার মেয়ের কাছে শুনেছি তার সঙ্গে এমনটা হয়নি। তবে তার সিনিয়রদের সঙ্গে এমনটা হয়েছে। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকও জানিয়েছেন যে, ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা তার কাছে অভিযোগ করেছে। তাই আমরা আটজন মিলে অভিযোগ করি। আমরা বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানাই।

এদিকে বুধবার নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে সংবাদ সম্মেলন করে বিষয়টি সাজানো এবং ষড়যন্ত্রমূলক বলে দাবি করেন ওই শিক্ষক। আইসিটি শিক্ষক নুরে আলম সিদ্দিকী জানান, আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলা হয়েছে কম্পিউটার ক্লাসের সময় ছাত্রীদের শরীর স্পর্শ করার। ৪০-৫০ জনের একটি ক্লাসে এমন আচরণ করা কী কখনো সম্ভব? মূলত আমি ষড়যন্ত্রের শিকার। অভিযোগকারীদের মধ্যে অন্যতম সত্যেন চন্দ্র রায়ের সাথে আমার ব্যবসায়িক দ্বন্দ্ব দীর্ঘদিনের। তিনিই আমার বিরুদ্ধে এই অভিযোগ করিয়েছেন। নিরপেক্ষ তদন্ত হলে নিশ্চিয়ই সত্যটা বেরিয়ে আসবে। কারণ আমি কোন ছাত্রীর শরীর স্পর্শ করি নাই। এছাড়া আমি আমার চাকরির বিষয়ে উচ্চ আদালতে একটি রিট করায় বিদ্যালয়ের অনেক শিক্ষক আমার উপর ভেতরে ভেতরে ক্ষুব্ধ। প্রায় ২০ বছর ধরে আমি এখানে চাকরি করছি। কেউ বলতে পারবে না আমি কারও সাথে খারাপ আচরণ করেছি। তারা এই অভিযোগ করায় আমি মানসিকভাবে মারাত্মক আঘাত পেয়েছি। বিষয়টি সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে তদন্ত দাবি করছি।

বোদা পাইলট মডেল সরকারি স্কুল অ্যান্ড কলেজের প্রধান শিক্ষক জামিউল হক বলেন, হঠাৎ গত রবিবার ৭-৮ জন ছাত্রী আমাকে মৌখিকভাবে বিষয়টি জানায়। পরদিন অভিভাবকরা লিখিত অভিযোগ করেন। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করে দেয়া হয়েছে।

বোদা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সোলেমান আলী বলেন, এই অভিযোগ পাওয়ার পর আমরা তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি করে দিয়েছি। দশ কর্মদিবসের মধ্যে তাদের প্রতিবেদন দিতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। তদন্তসাপেক্ষে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন

ওয়েবসাইট নকশা প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত