1. admin@www.shikhatvlive.com : news :
বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ০৭:৪৯ পূর্বাহ্ন

বাগমারায় ধুমধাম করে বিয়ে দিলেন এতিম মেয়ের।

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী, ২০২২
  • ৬২ ,৫২৫০ বার পড়া হয়েছে
মাহাবুর রহমান মনি, বাগমারা(রাজশাহী)প্রতিনিধি :
রাজশাহীর বাগমারায় ধুমধাম করে বিয়ে দেয়া হল এক এতিম মেয়ের। উপজেলার সোনাডাঙ্গা ইউনিয়নের দৌলতপুর গ্রামের রিপা খাতুনের (১৮) বাবা মারা যান তার ছোটবেলায়। মায়ের মৃত্যু হয় বছর ছয়েক আগে। অবশেষে অনাথ রিপার ঠাঁই হয় স্থানীয় ‘মদিনাতুল মনোয়ারা বালিকা হাফেজিয়া কওমি মাদ্রাসা ও লিল্লাহ বোডিং’ নামের একটি প্রতিষ্ঠানে।
সেখানে তার থাকা ও পড়াশোনার ব্যবস্থা করা হয়। আজ বৃহস্পতিবার মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ ও গ্রামের লোকজন মিলে ধুমধাম করে রিপার বিয়ে দেন। পাত্র পাশের ভরট্ট লিকড়াপাড়া গ্রামের রতন আলী।যে মাদ্রাসায় রিপার বেড়ে ওঠা, সেই মাদ্রাসার পাশেই তার বিয়ের আয়োজন করা হয়।
বিয়ে উপলক্ষে মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ ও স্থানীয় লোকজন নিজ উদ্যোগে লক্ষাধিক টাকা দামের একটি ষাঁড় ও ছাগল কেনেন।সুন্দর করে সাজানো হয় অনুষ্ঠানস্থল। খাবারের তালিকায় ছিল পোলাও, মাংস ও মিষ্টি। বিয়েতে আসা অতিথীরা অনাথ এক তরুণীর বিয়ে উপলক্ষে এত সুন্দর আয়োজন করায় মুগ্ধতার কথা জানান।

স্থানীয় বাসিন্দা ইসাহাক আলী বলেন, তাদের এলাকায় এত বড় আয়োজনে বিয়ে কমই হয়েছে। স্থানীয় সবার সহযোগিতায় সবকিছু সম্ভব হয়েছে।

এই বিয়ে অনুষ্ঠানের প্রধান আয়োজক স্থানীয় বাসিন্দা ব্যবসায়ী মোজাম্মেল হক বলেন, তিনি রিপাকে নিজের মেয়ের মতো দেখেন। নিজ দায়িত্বে তিনি এলাকার লোকজনের সহায়তা নিয়ে রিপার বিয়ের ব্যবস্থা করেন।কনে রিপা খাতুন এমন আয়োজনে আনন্দিত।
তিনি আক্ষেপ করে বলেন, ‘এমন ধুমধাম করে বিয়ের আয়োজন হবে, আগে ভাবতে পারিনি। মাদ্রাসা ছুটি হলে সব শিক্ষার্থী বাড়িতে যেত। আমার যাওয়ার কোনো জায়গা ছিল না। মা-বাবা ও আপনজন না থাকায় মাদ্রাসাকে ঠিকানা হিসেবে ব্যবহার করতাম।’
বর রতন আলী বলেন, তিনি সব জেনেই রিপাকে বিয়ে করছেন। এমন মেয়েকে বউ হিসেবে পেয়ে তিনি নিজেকে ভাগ্যবান বলে মনে করছেন। তার সবটুকু ভালবাসা দিয়ে তাকে আগলে রাখবেন বলেও তিনি জানান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন

ওয়েবসাইট নকশা প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত