1. shikhatvlive@gmail.com : Shikha TV Live :
রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:৫৭ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর এমপিওভুক্ত শিক্ষক মোকাররম হোসেন এর আবেগঘন খোলা চিঠি বিয়েবাড়িতে ছবি তোলা নিয়ে গোলাগুলি, আহত ২৪ পরিবারের আয়ের পথ না থাকায় তারা বাধ্য হয়েই কাঁকড়া শিকারের কাজে নেমেছেন, স্কুলে ফেরানোই এখন বড় চ্যালেঞ্জ! শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে এখনো সংক্রমণের খবর আসেনি : শিক্ষামন্ত্রী নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ঘটনা নিয়ে হাইকোর্টের দেওয়া রুলের শুনানি শেষ, রায় অপেক্ষামান সাধারণ পর্যটক হিসেবে মহাকাশ ঘুরে এলেন চার পর্যটক লক্ষ বেকারের আস্তা ও বিশ্বাসের প্রতিক রিং আইডি।। তরুণ উদ্যোক্তা সাহাবুর সকলের সহযোগিতা চায়। নাটোরে আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত রাতের অন্ধকারে ঘরের দুয়ারে চিরকুটসহ টাকা রাজশাহীতে ভুল চিকিৎসায় জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে শিশু রাফি

বরগুনায় ইউপি প্যানেল চেয়ারম্যান জেলহাজতে

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: রবিবার, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ১২ ৫০০০ বার পড়া হয়েছে

ছবি:মোতাহার মৃধা
সাবেক ইউপি প্যানেল চেয়ারম্যান-১ ও ৩ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বর শফিকুল ইসলাম পনুকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করার অভিযোগে ওই ওয়ার্ডের বর্তমান মেম্বার এবং প্যানেল চেয়ারম্যান-১ মোতাহার মৃধাকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

রোববার দুপুরে বরগুনার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. মাহবুব আলম এ আদেশ দেন।

জানা যায়, বরগুনা সদর উপজেলার ৫ নম্বর আয়লা পাতাকাটা ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বর ও প্যানেল চেয়ারম্যান-১ ছিল শফিকুল ইসলাম পনু। একই ওয়ার্ডে মেম্বর পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন পাকুরগাছিয়া গ্রামের মৃত মোহাম্মদ মৃধার ছেলে মোতাহার মৃধা। চলতি বছর ১ এপ্রিল বিকাল ৬টার দিকে পাকুরগাছিয়া গ্রামে নির্বাচনী প্রচারের সময় মোতাহার মৃধাসহ ২৯ জন একত্রিত হয়ে শফিকুল ইসলাম পনুকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে।

দুটি পা ভেঙে দেয়। একাধিক কুপিয়ে পনুর শরীর জখম করে। বরগুনা থানার পুলিশ সংবাদ পেয়ে পনুকে উদ্ধার করে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করায়। পনু বাদী হয়ে বরগুনা থানায় ১০ এপ্রিল মোতাহার মৃধাসহ ২৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

রোববার দুপুরে বরগুনার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে স্বেচ্ছায় হাজির হলে শুনানি শেষে জামিনের আবেদন না মঞ্জুর করে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

শফিকুল ইসলাম পনু বলেন, ইউনিয়নের নির্বাচনের আগে মোতাহার মৃধা ও আকাইদ হোসেন ঠাণ্ডাসহ ৩০-৪০ জন সন্ত্রাসী আমাকে পিটিয়ে মারাত্মক জখম করে। আমার দুটি পা ভেঙে দেয়। কুপিয়ে সব শরীর রক্তাক্ত করে। আমি এখনও হাঁটতে পারি না। আমাকে মারধর করে নির্বাচনে পরাজিত করে মোতাহার মৃধা ও তার দলবল। আমি বিচার চাই।

হাজতি আসামি মোতাহার মৃধা কোর্ট বারান্দায় বসে বলেন, আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে ফাঁসানো হয়েছে। এ ঘটনায় আমি জড়িত ছিলাম না

শিক্ষা টিভি লাইভ এর সংবাদ শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত