1. shikhatvlive@gmail.com : Shikha TV Live :
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:০১ পূর্বাহ্ন

বাংলাদেশে ফোন হ্যাকিংয়ের যন্ত্র বিক্রি বন্ধ করেছে ইসরায়েলি প্রতিষ্ঠান সেলেব্রাইট

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: রবিবার, ২৯ আগস্ট, ২০২১
  • ১৯ ৫০০০ বার পড়া হয়েছে

শিক্ষা টিভি লাইভ ডেস্ক

সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশে ফোন হ্যাকিংয়ের বিষয়টি বেশ আলোচিত। ইতোপূর্বে ইসরাইলী একটি প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে হ্যাকিং যন্ত্রপাতি ক্রয় করা এবং এর প্রশিক্ষণ গ্রহণের বিষয়টি সচিত্র প্রমাণসহ ওঠে এসেছে বহুল আলোচিত আল-জাজিরার ‘অল আর প্রাইমমিনিস্টার্স মেন’ ডক্যুমেন্টারিতে। এখন শোনা যাচ্ছে যে, বাংলাদেশের নিরাপত্তা বাহিনীর কাছে ফোন হ্যাকিং-এর যন্ত্রপাতি বিক্রি বন্ধ করে দিয়েছে ইসরাইলী ওই প্রতিষ্ঠান।

বাংলাদেশের পক্ষ থেকেও দাবী করা হয়েছে যে, ইসরাইলের কাছ থেকে এমন কিছু আমদানি করা হয়নি। জানা গেছে, জার্মানভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ডয়েসে ভেলেকে ওই প্রতিষ্ঠানটির একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, মানবাধিকার লঙ্ঘন এবং তথ্য নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ থাকায় বাংলাদেশসহ কয়েকটি দেশের সঙ্গে ব্যবসা না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা। ওই মুখপাত্র আরো বলেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপীয় ইউনিয়ন, যুক্তরাজ্য বা ইসরাইল নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে, কিংবা ‘ফাইন্যান্সিয়াল অ্যাকশন টাস্ক ফোর্স’-এর কালো তালিকায় আছে এমন কোনো দেশে কিছু বিক্রি করে না সেলেব্রাইট। আমরা এমন ক্রেতাদের সাথে ব্যবসা করি, যারা আইন মেনে কাজ করে এবং গোপনীয়তার অধিকার বা মানবাধিকার লঙ্ঘন করে না।

তিনি বলেন, উদাহরণস্বরপ বলতে পারি, আমরা বাংলাদেশ, বেলারুশ, চীন, হংকং, ম্যাকাও, রাশিয়া এবং ভেনেজুয়েলার সঙ্গে ব্যবসা না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি, যার আংশিক কারণ হচ্ছে, দেশগুলোর মানবাধিকার পরিস্থিতি এবং সেখানে তথ্য সুরক্ষা ব্যবস্থা নিয়েও উদ্বেগ রয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের শেয়ারবাজারে নিবন্ধিত হতে দেশটির সিকিউরিটিস অ্যা- এক্সচেঞ্জ কমিশন (এসইসি)-কে বেশ কিছু তথ্য প্রদান করেছে ইসরায়েলি প্রতিষ্ঠানটি। এসইসি’র ওয়েবসাইটে প্রকাশিত সেসব তথ্যের মাঝে সেলেব্রাইট এটাও উল্লেখ করেছে যে, রাশিয়া এবং বাংলাদেশসহ কিছু দেশে পণ্য বিক্রি বন্ধের দাবীতে ইসরাইলী আদালতে পিটিশন এবং গণমাধ্যমে প্রকাশিত এ সংক্রান্ত প্রতিবেদনের কারণে প্রতিষ্ঠানটির ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন হয়ে থাকতে পারে।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন বা র‌্যাব নামক ‘এলিট ফোর্স’-এর যাত্রা শুরু হয় ২০০৪ সালে।বাংলাদেশ পুলিশ, সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনীর সদস্যদের নিয়ে র‌্যাব গঠন করা হয়। এই বাহিনীর উল্লেখযোগ্য কর্মকা-ের মধ্যে রয়েছে সন্ত্রাস প্রতিরোধ, মাদক চোরাচালান রোধ, দ্রুত অভিযান পরিচালনা এবং জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন কার্যক্রমে নিরাপত্তা প্রদান।

কিন্তু শুরুর দিকের র‌্যাবের কার্যক্রম বেশ প্রশংসা কুড়ালেওক্রসফায়ারের নামে অসংখ্য ‘বিচার বহির্ভূত হত্যাকা-’র কারণে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে র‌্যাবের বিরুদ্ধে সমালোচনা ক্রমশ বাড়তে থাকে। হিউম্যান রাইটস ওয়াচ র‌্যাবের বিলুপ্তি দাবী করে জানিয়েছে, প্রতিষ্ঠার পর থেকেই এই বাহিনী ‘সিসটেমেটিক’ উপায়ে মানবাধিকার লঙ্ঘন করছে

শিক্ষা টিভি লাইভ এর সংবাদ শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত