1. shikhatvlive@gmail.com : Shikha TV Live :
রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:০৪ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর এমপিওভুক্ত শিক্ষক মোকাররম হোসেন এর আবেগঘন খোলা চিঠি বিয়েবাড়িতে ছবি তোলা নিয়ে গোলাগুলি, আহত ২৪ পরিবারের আয়ের পথ না থাকায় তারা বাধ্য হয়েই কাঁকড়া শিকারের কাজে নেমেছেন, স্কুলে ফেরানোই এখন বড় চ্যালেঞ্জ! শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে এখনো সংক্রমণের খবর আসেনি : শিক্ষামন্ত্রী নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ঘটনা নিয়ে হাইকোর্টের দেওয়া রুলের শুনানি শেষ, রায় অপেক্ষামান সাধারণ পর্যটক হিসেবে মহাকাশ ঘুরে এলেন চার পর্যটক লক্ষ বেকারের আস্তা ও বিশ্বাসের প্রতিক রিং আইডি।। তরুণ উদ্যোক্তা সাহাবুর সকলের সহযোগিতা চায়। নাটোরে আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত রাতের অন্ধকারে ঘরের দুয়ারে চিরকুটসহ টাকা রাজশাহীতে ভুল চিকিৎসায় জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে শিশু রাফি

ঠাকুরগাঁওয়ের মিলি হত্যা– ছেলেসহ আটক ২

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: শুক্রবার, ১৩ আগস্ট, ২০২১
  • ১৯ ৫০০০ বার পড়া হয়েছে

 

মোঃ মজিবর রহমান শেখ,, ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধি,,ঠাকুরগাঁও শহরের গৃহবধূ সান্তনা রায় ওরফে মিলি চক্রবর্তী হত্যার ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের ছেলে ও এক বিএনপি নেতাকে আটক করেছে সিআইডির পুলিশ । ১২ আগস্ট বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ঠাকুরগাঁও জেলা শহরে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয় বলে জানান, মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ঠাকুরগাঁও সিআইডির পরিদর্শক মো. আব্দুর রাজ্জাক । আটকরা হলেন ঠাকুরগাঁও জেলা বিএনপির স্বেচ্ছাসেবক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম সোহাগ (৪০) ও নিহত মিলি চক্রবর্তীর ছেলে অর্ক রায় রাহুল (২৮) । গত ৮ জুলাই সকালে শহরের শহীদ মোহাম্মদ আলী সড়কের দুইটি বিপণিবিতানের মাঝের ফাঁকা সরু গলি থেকে গৃহবধূ সান্তনা রায় ওরফে মিলি চক্রবর্তীর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। বিষয়টি নিয়ে শহর জুড়ে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়। এরপর ১০ জুলাই ঠাকুরগাঁও জেলার সদর থানার এস,আই নির্মল কুমার রায় বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। সিআইডি পরিদর্শক আব্দুর রাজ্জাক সাংবাদিকদের কে বলেন, “গত ৫ অগাস্ট মিলি হত্যাকাণ্ডের মামলাটি পুলিশ থেকে তদন্তের জন্য সিআইডিতে স্থানান্তর করা হয়। এরপর থেকে আমরা তদন্তের কাজ শুরু করি।” তিনি বলেন, মামলার তদন্তের স্বার্থে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১২ আগস্ট বৃহস্পতিবার রাতে শহরের কালিবাড়ি মোড় থেকে আমিনুল ইসলাম সোহাগ ও মোহাম্মদ আলী সড়কের বাড়ি থেকে মিলির ছেলে অর্ক রায় রাহুলকে আটক করা হয়। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি তানভিরুল ইসলাম সাংবাদিকদের কে বলেন, মিলির লাশ উদ্ধার পর তার পরিবারের সদস্যদের মামলা দিতে বলা হয়েছিল। প্রথমে তারা রাজিও হয়েছিল, কিন্তু শেষ পর্যন্ত তারা মামলা দেয়নি। “প্রথম থেকেই আমাদের সন্দেহ ছিল কেউ মিলিকে হত্যা করে এবং বিষয়টি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার জন্য তার লাশ দুইটি বিপণিবিতানের মাঝের ফাঁকা সরু গলি ফেলে রাখে।

শিক্ষা টিভি লাইভ এর সংবাদ শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত