1. shikhatvlive@gmail.com : Shikha TV Live :
মঙ্গলবার, ০৩ অগাস্ট ২০২১, ১০:২৩ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর এমপিওভুক্ত শিক্ষক মোকাররম হোসেন এর আবেগঘন খোলা চিঠি বগুড়ায় ‘বঙ্গবন্ধু মাচাং’ উদ্বোধন করায় যুবলীগ নেতা বহিষ্কার গফরগাঁওয়ে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলছে তবে নেই কোন সচেতনতা। মেয়াদ শেষে অব্যবহৃত ডাটা ব্যবহারকারীকে ফেরত দিতে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এর নির্দেশ শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের টিকা নিতে উদ্বুদ্ধকরণে নির্দেশনা বাংলাদেশ সফর স্থগিত করল ইংল্যান্ড ঠাকুরগাঁওয়ে ৩ কেজি গাঁজা উদ্ধার ও ১ জনকে আটক ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ২ মাস বিনাশ্রমে কারাদণ্ড প্রদান করেন । ঠাকুরগাঁওয়ে বালিয়াডাঙ্গীতে মসজিদ উন্নয়নের জন্য ৫০ (পঞ্চাশ হাজার)টাকা অনুদান দিলেন — এমপি পুত্র মাজহারুল ইসলাম সুজন । নাটোর লালপুরে লকডাউনের ১১তম দিনে ৪ ব্যাক্তিকে জরিমানা বানিয়াচংয় প্রত্নতত্ত্ব সম্পদে ভরপুর, তবে নেই কোন রক্ষণাবেক্ষণ।। গোপালগঞ্জে মোটরসাইকেল চোর চক্রের ৪ সদস্য গ্রেফতার

বজ্রপাতে একসঙ্গে ১৯ মহিষের মৃত্যু

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: শুক্রবার, ২ জুলাই, ২০২১
  • ৩৪ ৫০০০ বার পড়া হয়েছে

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে মেঘনা নদীর তীরবর্তী টুনিরচরে বজ্রপাতে ১৯ মহিষের মৃ’ত্যু হয়েছে। বুধবার রাতে এ ঘটনা ঘটেছে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মৃ’ত মহিষগুলো উদ্ধার করে মেঘনায় ভাসিয়ে দেওয়া হয়েছে। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন রায়পুরের প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তারা। রায়পুরের দক্ষিণ চরবংশি ইউপির টুনিরচর গ্রামের ক্ষ’তিগ্রস্ত মহিষের মালিক হলেন— আলী হোসেন, জাহাঙ্গীর, দুলাল বোহাদ্দার, ইউসুফ ও বরিশালের জাহাঙ্গীর আকন্দ।

বাথান মালিক দুলাল পোদ্দার জানান, রায়পুরের মেঘনায় জেগে ওঠা টুনিরচরে তারা চারজনসহ অনেকে গত ৩০ বছরের বেশি সময় ধরে মহিষ পালন করে আসছেন। ব্যক্তিগত উদ্যোগে সেখানে তারা মাটির কিল্লা (উচুঁ মাটির ভিটে) স্থাপন করেন।

জোয়ার এলে চরের মহিষগুলো কিল্লাতে আশ্রয় নেয়। কিন্তু বুধবার রাতে মেঘনার এ চরে বজ্রপাতে বাছুরসহ ১৯টি মহিষ মারা যায়। যার বর্তমান বাজার মূল্য প্রায় ১৫ লাখ টাকা। এসব মহিষ উদ্ধার করে সন্ধ্যায় প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ও চরের লোকজনের উপস্থিতিতে মেঘনায় ভাসিয়ে দেওয়া হয়েছে।

রায়পুর উপজে’লা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. আতাউর রহমান যুগান্তরকে বলেন, রায়পুর শহর থেকে বিচ্ছিন’্ন দুর্গম ওই চরের বিভিন্ন বাথানে দুই হাজারেরও বেশি মহিষ পালন করা হয়। কিন্তু দুর্যোগে এসব মহিষ রক্ষায় কোনো ব্যবস্থা নেই। মহিষ মালিকরা ব্যক্তিগত উদ্যোগে মাটির কিল্লা স্থাপন করেছেন। ওই মাটির কিল্লা যথেষ্ট নয়।

রায়পুর উপজে’লা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সাবরিন চৌধুরী যুগান্তরকে বলেন, মহিষগুলোর মৃ’ত্যুর বিষয়ে তিনি খোঁজ’খবর রেখেছেন। চরে মাটির কিল্লা স্থাপনের ব্যাপারে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। এ ছাড়া উপজে’লা পরিষদ থেকেও কিল্লা নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে।

শিক্ষা টিভি লাইভ এর সংবাদ শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত