1. shikhatvlive@gmail.com : Shikha TV Live :
রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১, ১১:২৭ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর এমপিওভুক্ত শিক্ষক মোকাররম হোসেন এর আবেগঘন খোলা চিঠি ঠাকুরগাঁওয়ে বালিয়াডাঙ্গীতে স্ত্রীর মর্যাদা পেতে ১৪ দিন ধরে শ্বশুরবাড়িতে মেয়েটির অবস্থান । অবশেষে মাদরাসার গ্রন্থাগারিকরাও শিক্ষক মর্যাদা পেলেন মানবিক ইউএনওঃ দন্ডের পরিবর্তে দিলেন খাদ্য সহায়তা গোপালগঞ্জে সাংবাদিকদের ঈদ উপহার দিলেন জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা করোনায় দেশে ২২৮ জনের মৃত্যু! মৌলভীবাজারের সুমারাই মনুনদীর পাড় থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার। পদ্মায় নৌকা ডুবে মোটরসাইকেল হারালেন রাজিব সিরিজ জয়ে ১৯৪ রান করতে হবে টাইগারদের পদ্মা সেতুর পিলারে ধাক্কা: ফেরির ২ চালককে দায়ী করে পদ্মা ৯৪ বছর বয়সে বিয়ের গাউনে স্বপ্নপূরণ

জাল নিবন্ধন সনদধারী শিক্ষকরা ধরা খাবে যে ভাবে

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: বুধবার, ২৩ জুন, ২০২১
  • ১০২ ৫০০০ বার পড়া হয়েছে

 

শিক্ষা টিভি লাইভ ডেস্ক : দেশে ১ জুলাই তারিখ থেকে শিক্ষক নিবন্ধন সনদ যাচাই করা যাবে অনলাইনে। এবার সেবা সহজ করতে এ ব্যবস্থা নিয়েছে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ- এনটিআরসিএ।

এবিষয়ে এক অফিস আদেশে বলা হয়েছে, নিবন্ধনধারী শিক্ষকদের নিবন্ধন সনদ যাচাইয়ের আবেদন অনলাইনে গ্রহণ ও যাচাই প্রতিবেদন প্রকাশের ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে। এবিষয়ে যেসকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নিবন্ধনধারী কোনও শিক্ষকের নিবন্ধন যাচাই করতে ইচ্ছুক সেসকল প্রতিষ্ঠানকে office@ntrca.gov.bd ই-মেইলে সংশ্লিষ্ট শিক্ষকের নিবন্ধন সনদ ও নিয়োগপত্র প্রতিষ্ঠান থেকে সত্যায়ন করে পাঠাতে হবে। এছাড়া যে ই-মেইলে প্রতিষ্ঠান সনদ যাচাইয়ের প্রতিবেদন পেতে ইচ্ছুক সেই ইমেইল ঠিকানা ফরওয়ার্ডিং পত্রে উল্লেখ করতে হবে।

 

এই সনদ যাচাইয় প্রক্রিয়ার জন্য কোন ধরনের ফি দিতে হবে না। এবিষয়ে বলা হয়েছে, ফরওয়ার্ডিং পত্রে উল্লেখ করা ই-মেইলে যাচাই প্রতিবেদন পাঠানো হবে। এছাড়া এনটিআরসিএ ওয়েবসাইট থেকে যাচাই প্রতিবেদন ডাউনলোড ও প্রিন্ট ও করা যাবে।

এবিষয়ে ২০১৫ সালের সমকালে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে বলা হয়, ”সারাদেশে মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক ও স্নাতক স্তরের চিহ্নিত প্রায় ৬০ হাজার শিক্ষক এখন জাল সনদে শিক্ষকতা করছেন।”

এখন প্রশ্ন হল ২০১৫ সালে যদি সারাদেশে ৬০ হাজার ভুয়া সনদধারী শিক্ষক থেকে তাকে তবে এখন সেই সংখ্যাটি নিশ্চয় কমেনি।

এছাড়া এক অনুসন্ধানে দেখা গেছে, ভুয়া সনদধারী (শিক্ষক) রা মূলত ৪ ধরনের ভুয়া সনদ চাকরিতে বেশি ব্যবহার করছে। ১। শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ, ২। নিবন্ধন সনদ, ৩। কম্পিউটার শিক্ষা বিষয়ক ভুয়া সনদ এবং ৪। অভিজ্ঞতার জাল সনদ।

এবিষয়ে বিস্তারিত খোঁজ-খবর নিয়ে জানা যায়, জাল সনদ ধরার জন্য দেশে কাজ করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পরিদর্শন ও নিরীক্ষা অধিদপ্তরের (ডিআইএ)। তাদের দেওয়া তথ্য ও নথিপত্র মতে, ১৯৮১ সাল থেকে ২০১৫ সালের মে মাস পর্যন্ত ৩৫ বছরে সারাদেশে ৫১ হাজার ৯৯২ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করে প্রায় পৌনে চার লাখ শিক্ষকের সনদ জাল বলে চিহ্নিত করেছে ডিআইএ। এবং এসব (জাল) শিক্ষক এই সময়কালে সরকারি কোষাগার থেকে ৪৮২ কোটি ৭৮ লাখ ৫১ হাজার ৫৫৭ টাকা বেতন-ভাতা তুলেছে।

এছাড়া ২০১৬ সালে ডিআইএ এর তথ্য মতে তাদের কাছে ১০ হাজার ভুয়া সনদধারী শিক্ষক জাল সনদে চাকুরী করছে বলে তাদের কাছে অভিযোগ ছিল।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ২০০৫ সালে বেসরকারি শিক্ষক নিয়োগের শর্ত হিসাবে নিবন্ধন বাধ্যতামূলক করা হয়। আর এ জন্য নিবন্ধন কর্তৃপক্ষ বা এনটিআরসিএ গঠন করা হয়। এই কর্তৃপক্ষের বিষয়ভিত্তিক পরীক্ষায় অংশ নিয়ে যারা কৃতকার্য হন তারাই শুধুমাত্র নিবন্ধন প্রত্যয়নপত্র পান। এছাড়া এই নিবন্ধন প্রত্যয়ন শিক্ষক নিয়োগের বিভিন্ন শর্তের একটি।

শিক্ষা টিভি লাইভ এর সংবাদ শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত