1. shikhatvlive@gmail.com : Shikha TV Live :
সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ০৫:১৮ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর এমপিওভুক্ত শিক্ষক মোকাররম হোসেন এর আবেগঘন খোলা চিঠি ঠাকুরগাঁওয়ে বালিয়াডাঙ্গীতে স্ত্রীর মর্যাদা পেতে ১৪ দিন ধরে শ্বশুরবাড়িতে মেয়েটির অবস্থান । অবশেষে মাদরাসার গ্রন্থাগারিকরাও শিক্ষক মর্যাদা পেলেন মানবিক ইউএনওঃ দন্ডের পরিবর্তে দিলেন খাদ্য সহায়তা গোপালগঞ্জে সাংবাদিকদের ঈদ উপহার দিলেন জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা করোনায় দেশে ২২৮ জনের মৃত্যু! মৌলভীবাজারের সুমারাই মনুনদীর পাড় থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার। পদ্মায় নৌকা ডুবে মোটরসাইকেল হারালেন রাজিব সিরিজ জয়ে ১৯৪ রান করতে হবে টাইগারদের পদ্মা সেতুর পিলারে ধাক্কা: ফেরির ২ চালককে দায়ী করে পদ্মা ৯৪ বছর বয়সে বিয়ের গাউনে স্বপ্নপূরণ

বাবার সঙ্গে এ কেমন আচারণ?

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: শুক্রবার, ১৮ জুন, ২০২১
  • ৫৪ ৫০০০ বার পড়া হয়েছে

রাঙ্গাবালী (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি

বৃদ্ধ বাবাকে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে ছেলের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলার চরমোন্তাজ ইউনিয়নের দক্ষিণ চরমোন্তাজ গ্রামে। বৃহস্পতিবার রাতে নির্যাতনের সেই ঘটনার ৩৭ সেকেন্ডের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে।

ভিডিওতে দেখা যায়, বাড়ি থেকে বাবাকে টেনে হিচড়ে জবরদস্তি করে রাস্তায় ফেল দিচ্ছে তার ছেলে। হাত ধরে করছে টানা হেঁচরা। পিঠ ও ঘাড় ধরে একের পর এক ধাক্কা দেয় ছেলে। গায়ের গেঞ্জিটাও টানতে টানতে ছিঁড়ে ফেলে। এ সময় ছেলেকে বলতে শোনা যায়, ‘এ মহিষ কের? মহিষ ব্যাচ্চে কেডা? মহিষের ধারে লইয়া যামু।’
এ সময় কয়েকজন নারীও ছিল সেখানে। এদের মধ্যে এক নারীকে বলতে শোনা যায়, ‘ফিরোজ ভাই ছাড়েন।’ কিন্তু তা শুনছিলে না ছেলে। ধাক্কা দিতে দিতে সামনের দিকে নিয়ে যাচ্ছিলেন বাবাকে।

জানা গেছে, নির্যাতনের শিকার ওই বাবার নাম দেলোয়ার ফরাজী (৭০)। আর নির্যাতনকারী ছেলে হলেন ফিরোজ ফরাজী। তাদের বাড়ি দক্ষিণ চরমোন্তাজ গ্রামে। গত ১৪ জুন সকাল ৮টায় তাদের নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় গতকাল বৃহস্পতিবার গলাচিপা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি মামলা দায়ের করা হয়। বাবা দেলোয়ার ফরাজী বাদী হয়ে তিন ছেলে এবং এক পুত্রবধূর বিরুদ্ধে মামলাটি করেন। বিচারক এ মামলাটি আমলে নিয়ে তাদের নামে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছে বলে জানায় সংশ্লিষ্টরা।
আমলার আসামিরা হলেন, নির্যাতনকারী ছেলে ফিরোজ ফরাজী (৩২), আলমাছ ফরাজী (৪৮), আজমল ফরাজী (৪০) ও আলমাছের স্ত্রী চরমোন্তাজ ইউপির ৭, ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা ইউপি সদস্য নাজমা বেগম (৪০)।

স্থানীয় লোকজন জানায়, ১৫-১৬ বছর আগে দেলোয়ার ফরাজী তার স্ত্রী রওশনা বেগমের নামে সব জমিজমা লিখে দেন। তিন বছর আগে হারুন ফরাজী নামের এক ছেলেকে বঞ্চিত করে ফিরোজ, আলমাছ ও আজমলের নামে সেই জমি দলিল করে দেন তাদের মা। এ জমিজমা নিয়েই তিন ভাইয়ের সঙ্গে হারুনের দ্বন্দ্ব শুরু হয়। ওই ঘটনার আগ থেকেই হারুনের ঘরে বসবাস করতো তার বাবা। ফলে অন্য তিন ছেলের সঙ্গে বাবার দূরত্ব বাড়তে থাকে। প্রতিবেশীরা বলছেন, ওইদিন মহিষ চোর বলায় বাবার ওপর ক্ষুব্ধ হয়ে এ কাণ্ড ঘটায় ছেলে।

দেলোয়ার ফরাজীর বড় ছেলে আলমাছ ফরাজী বলেন, আমার স্ত্রী মেম্বার। আমার বিরোধী লোকেরা বাবাকে উস্কানি দেয়। একারণে বাবা পাগলামী করে। বাবাকে মারে নাই, ছোট ভাই শুধু হাত ধরছে।

নির্যাতনের শিকার দেলোয়ার ফরাজী বলেন, হারুনের ঘরে অনেক বছর ধরে আমি থাকি। জমির ঝামেলায় আমার অন্য ছেলেরা তা পছন্দ করে না। ছোটখাটো ঘটনা নিয়ে ঝামেলা করে। ওইদিন ফিরোজ আমাকে বাড়ি থেকে বের করার জন্য অনেক মারছে। হাত-পায়ে শরীরে এখনও দাগ আছে। সঙ্গে আরেক ছেলে আজমলও খারাইয়া থাইক্কা কয়, ‘হালারপো হালারে পিটা।’ পোলা (ছেলে) বউ নাজমা ডাক দিয়ে কয়, ‘পরিষদে নিয়ে যান।’

তিনি আরো বলেন, জমিজমা ছাড়া আরও দ্বন্দ্ব আছে। পোলাবউ নাজমার সঙ্গে হারুনের বউও মেম্বারি নির্বাচন করতে চায়। এজন্য আমারে মারপিট করছে। ফাঁড়িতে (চরমোন্তাজ পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র) গিয়া ন্যায় বিচার পাই নাই। তাই কোর্টে মামলা করছি।

রাঙ্গাবালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেওয়ান জগলুল হাসান বলেন, এ ঘটনায় আদালতে মামলা হয়েছে। থানাও মামলা প্রক্রিয়াধীন। আসামি একজন গ্রেপ্তার আছে। নাম পরে জানানো হবে

শিক্ষা টিভি লাইভ এর সংবাদ শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত