1. shikhatvlive@gmail.com : Shikha TV Live :
মঙ্গলবার, ০৩ অগাস্ট ২০২১, ১১:৫৬ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর এমপিওভুক্ত শিক্ষক মোকাররম হোসেন এর আবেগঘন খোলা চিঠি ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত, ঢাবি অধ্যাপকের বিরুদ্ধে মামলা বগুড়ায় ‘বঙ্গবন্ধু মাচাং’ উদ্বোধন করায় যুবলীগ নেতা বহিষ্কার গফরগাঁওয়ে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলছে তবে নেই কোন সচেতনতা। মেয়াদ শেষে অব্যবহৃত ডাটা ব্যবহারকারীকে ফেরত দিতে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এর নির্দেশ শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের টিকা নিতে উদ্বুদ্ধকরণে নির্দেশনা বাংলাদেশ সফর স্থগিত করল ইংল্যান্ড ঠাকুরগাঁওয়ে ৩ কেজি গাঁজা উদ্ধার ও ১ জনকে আটক ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ২ মাস বিনাশ্রমে কারাদণ্ড প্রদান করেন । ঠাকুরগাঁওয়ে বালিয়াডাঙ্গীতে মসজিদ উন্নয়নের জন্য ৫০ (পঞ্চাশ হাজার)টাকা অনুদান দিলেন — এমপি পুত্র মাজহারুল ইসলাম সুজন । নাটোর লালপুরে লকডাউনের ১১তম দিনে ৪ ব্যাক্তিকে জরিমানা বানিয়াচংয় প্রত্নতত্ত্ব সম্পদে ভরপুর, তবে নেই কোন রক্ষণাবেক্ষণ।।

করোনায় জীবন রক্ষাকারী নতুন চিকিৎসা উদ্ভাবন

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন, ২০২১
  • ৬৯ ৫০০০ বার পড়া হয়েছে

 

ছবি: সংগৃহীত
সারাবিশ্বে করোনা তাণ্ডবের প্রায় দেড় বছর পর গবেষকরা এর চিকিৎসায় খুঁজে পেয়েছেন নতুন পথ। এ চিকিৎসায় রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থাকে জোরদার করার পরিবর্তে অ্যান্টিবডি স্যালাইনের মাধ্যমে সরাসরি মানবদেহে প্রবেশ করানো হয়।

উদ্ভাবনকারী প্রতিষ্ঠান ‘রিজেনারন’ এই চিকিৎসার নাম রাখেন ‘মনোক্লোনাল অ্যান্টিবডি ট্রিটমেন্ট’। এটিকে করোনার বিরুদ্ধে জীবন রক্ষাকারী চিকিৎসা পদ্ধতি বলা হচ্ছে।

স্যালাইনের মাধ্যমে শক্তিধর অ্যান্টিবডি মানবদেহের শিরায় প্রবেশ করানোর এ পদ্ধতিটি ভাইরাসকে কাবু করতে অনেকটাই কার্যকরী। এটির পরীক্ষায় দেখা গেছে, করোনায় আক্রান্ত প্রতি তিন রোগীর একজনই এতে ভালো হয়ে উঠেছেন।

এ চিকিৎসায় দেহে প্রবেশ করানো অ্যান্টিবডি করোনাভাইরাসের কোষকে ঘিরে ধরে। ফলে দেহের অন্য কোনো কোষে করোনাভাইরাস আর ছড়াতে পারে না এবং সংখ্যায়ও বাড়তে পারে না।

বিশেষজ্ঞদের বরাত দিয়ে বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, করোনার নতুন এ চিকিৎসা দিয়ে আক্রান্তদের প্রতি ১০০ জনের মধ্যে ছয়জনের জীবন রক্ষা করা সম্ভব হবে। মূলত যেসব রোগীর দেহে করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করার মতো যথেষ্ঠ অ্যান্টিবডি থাকে না বা তৈরি হয় না শুধু তাদেরই এ চিকিৎসা দেওয়া হয়।

তবে জানা গেছে, এ চিকিৎসাটি হবে অনেকটাই ব্যয়বহুল। এতে খরচ পড়তে পারে প্রায় ৮৫ হাজার টাকা থেকে এক লাখ ৭০ হাজার টাকা পর্যন্ত।

এই চিকিৎসার ট্রায়ালে অংশ নিয়েছেন ৩৭ বছর বয়সি কিম্বারলি ফেদারস্টোন। তিনি বলেন, ‘আমার সৌভাগ্য যে, করোনা হওয়ার পর আমাকে যখন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়, ততদিনে এই পরীক্ষা চালু হয়ে গিয়েছিল এবং এই যুগান্তকারী পরীক্ষাটিতে আমি অংশ নিতে পেরেছিলাম।

ব্রিটেনের বিভিন্ন হাসপাতালের প্রায় ১০ হাজার করোনা রোগীর ওপর এ চিকিৎসার পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালানো হয়।

এ চিকিৎসা পরীক্ষায় নেতৃত্ব দেওয়া গবেষক স্যার মার্টিন ল্যানড্রে বলেন, দুই ধরনের অ্যান্টিবডি মিশিয়ে স্যালাইনের মাধ্যমে শিরায় প্রবেশ করানো হলে কোভিড রোগীর মৃত্যুর সম্ভাবনা এক-পঞ্চমাংশ কমে যায়।

তিনি আরও বলেন, ‘কোভিড-১৯’র মারাত্মক অবস্থাতেও রোগীর দেহে ভাইরাসের বিরুদ্ধে যে এই চিকিৎসা কার্যকর হবে এটি খুবই খুশির খবর

শিক্ষা টিভি লাইভ এর সংবাদ শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত